সিয়েরা লিওনে কোভিড-১৯ এর বৈশ্বিক মহামারী

Everything Wiki থেকে
পরিভ্রমণে ঝাঁপ দিন অনুসন্ধানে ঝাঁপ দিন
0.00
(one vote)

টেমপ্লেট:তথ্যছক বৈশ্বিক মহামারী2019-20 এর করোনভাইরাস মহামারীটি 2020 সালের 31 মার্চ সিয়েরা লিওনে সনাক্ত হয়েছিল বলে জানা যায়।

পটভূমি

2020 সালের 12 জানুয়ারী, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডাব্লুএইচও) নিশ্চিত করেছে যে চীনের হুবেই প্রদেশের ওহান সিটিতে লোকের একটি ক্লাস্টারে একটি নবেল করোনভাইরাস শ্বাসকষ্টের কারণ ছিল, যা ডাব্লুএইচওকে 31 ডিসেম্বর 2019 এ রিপোর্ট করা হয়েছিল। [১][২]

COVID-19-র ক্ষেত্রে মৃত্যুর অনুপাত 2003 এর সারসের তুলনায় অনেক কম ছিল,[৩][৪] তবে সংক্রমণটি উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বেড়েছে, উল্লেখযোগ্যভাবে মোট মৃতের সংখ্যা রয়েছে। [৫]

তারিখ মোট নিশ্চিত মোট উদ্ধার মোট মৃত্যু মোট পৃথক
31 মার্চ 1 0 0 -
১ এপ্রিল 2 0 0 -
এপ্রিল ২ 2 0 0 -
৩ এপ্রিল 2 0 0 311
৪ এপ্রিল 4 0 0 311
৫ এপ্রিল 4 0 0 311
১৩ এপ্রিল 6 0 0 243
April এপ্রিল 6 0 0 205
৮ ই এপ্রিল 7 0 0 205
১৯ এপ্রিল 7 0 0 255
10 এপ্রিল 8 0 0 374

২০২০ মার্চ

সিয়েরা লিওনের রাষ্ট্রপতি 31 মার্চ দেশটির করোনভাইরাস রোগের প্রথম আক্রান্ত ব্যক্তির কথা নিশ্চিত করেছেন, একজন ৩৭ বছর বয়সী ব্যক্তি যিনি ১৬ মার্চ ফ্রান্স থেকে ভ্রমণ করেছিলেন এবং তখন থেকেই তিনি আইসোলেশন এ ছিলেন। [৬]

২০২০ এপ্রিল

১ এপ্রিল সিয়েরা লিওন দ্বিতীয় আক্রাতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। যে কখনো প্রথম আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে আসেন নি । [৭] সরকার ৫ এপ্রিল থেকে 3 দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছে। [৮]

৪ এপ্রিল, আরও দু'টি করনা আক্রান্ত নিশ্চিত হয় এবং আরও দুটি শনাক্ত হয় ৫ এপ্রিল মোট ৬ জন এ পৌঁছায় ৬ এপ্রিল নতুন করে কেউ আক্রান্ত হয়নি। l৭ এপ্রিল এ ও কোনো নতুন কেও আক্রান্ত হয়নি ।205 জন লোককে পৃথক অবস্থায় রাখা হয়েছে, ৪ এপ্রিল আক্রান্ত সংখ্যা ৩১১ জন এ দাঁড়ায়।

৩ দিনের লকডাউন শেষ হওয়ার পরে ৯ এপ্রিল সরকার অতিরিক্ত ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষণা দেয়। প্রাথমিকভাবে ১৪ দিনের ব্যবধানে সমস্ত আন্তঃজেলা ভ্রমণকে সীমাবদ্ধ করা হয়ে। রাত ৯ টা হতে সকাল ৬ টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয় , দৈনন্দিন প্রয়োজনীয় জিনিস এর দোকান খোলা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয় এবং খুব প্রয়োজন ব্যতীত ঘর থেকে বের না হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়।। সবাইকে মুখোশ লাগানোর নির্দেশ হয় বিশেষ করে জনসাধারণ এর ভিড়ে । [৯]

প্রতিক্রিয়া

২৫ শে মার্চ, দেশের প্রথম করনা আক্রান্ত নিশ্চিত হওয়ার আগেই সরকার ১২ মাসের জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছিল। [১০]

আদেশে প্রবেশ এবং ধর্মীয় সমাবেশ নিষিদ্ধ ছিল। তিন দিনের লকডাউনটি ৫ এপ্রিল শুরু করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। [১১]

মহামারী নিয়ে সিয়েরা লিওন কে সহায়তা করার জন্য বিশ্বব্যাংক $ ৭.৫ মিলিয়ন অনুদানের ঘোষণা করেছে। [১১]

তথ্যসূত্র

টেমপ্লেট:সূত্র তালিকা


You are not allowed to post comments.